আমি যখন ………..

আমি যখন লিখতে বসি, এক একটি কী চেপে চালিয়ে যাই আমার ছন্দ..
তোমাদের অনেকেরই ভালো লাগে.. আবার অনেকেরই লাগে মন্দ!
সপ্ননিয়ে বড় বড় বুলি আঁকি, চালিয়েই যাই আমার আপ্রাণ চেস্টা!
আবার গুলিয়ে ফেলি সব কিছুই, ছন্দদেরই লাগে তেস্টা!

একবার লিখি, একটি একটি করে কী চাপতে থাকি, কখনো চাপি ব্যাকস্পেস!
মুছে আবার গতি নিয়ে লিখি, চারলাইনের পর হোয়াইটস্পেস!
গতিহীন আবেগগুলো আজ আমি লিখতেই থাকি, দেখিনা আর বানান ভুল!
সৌন্দর্যকে নিয়েই লিখতে থাকি, হয়ে পড়ি অনেকেরই চক্ষু শূল!

সময় সময় বড়ো একা লাগে, একা একাই হয়েছি আমি এই..
একাকিত্বের মাঝেই ভালোবাসা খুঁজি, একা একাই হারাই খেই!
নির্ভরতা অথবা অনিশ্চয়তা, কিছুই ভালো লাগেনা, ভেবেই যাই!
ছন্দদের মাঝেই মনের কথা বলি, ছন্দটাকেই ভালোবাসি তাই!

ভালোবাসার নীলসাগরে ভাসাতে চাই ছন্দের ভেলা!
পাই কিছুটা ভালোবাসা অথবা হয়তো পাই অনেক অবহেলা!
জানিনা আমি কেন লিখছি, জানি শুধুই ছন্দের খেলা!
ছন্দের মাঝেই কেন যানি আমি আজ, পাই অনেক ভালোবাসার মেলা!
……………… অসমাপ্ত রাখলাম……