ওয়াই ফাই কি এবং কেন? -Wifi (২য় অধ্যায়) তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি

ওয়াই ফাই কি এবং কেন? -Wifi (২য় অধ্যায়) তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি

  • Wireless Fidelity – WiFi রেডিও ওয়েব এর মাধ্যমে একটি ইলেকট্রনিক ডিভাইসকে উচ্চগতি সম্পন্ন ইন্টারনেট কানেকশন দিতে পারে।
  • প্রযুক্তিগত ভাবে IEEE 802.11B নামে পরিচিত।
  • ওয়াই ফাই এলায়েন্স হল একটি বিশ্বব্যপী প্রতিষ্ঠানের দল যা ডব্লিউ এল এ এন প্রযুক্তি বিস্তার করে এবং ইন্টেরোপেরাবিলিটির আদর্শ সমন্বিত ডিভাইসকে প্রত্যয়ন করে।
  • কোন ডিভাইসে ওয়াই ফাই লাগানো না থাকা মানে এই না যে ডিভাইসটি ওয়াই ফাই সমর্থন করে না।
  • অনেক সময় খরচ কমানোর জন্য সকল ৮০২.১১-উপযোগী ডিভাইস ওয়াই ফাই এলায়েন্স প্রত্যয়নের জন্য দেয়া হয় না।
  • সাধারণত সকল ল্যাপটপ, পেরিফেরাল ডিভাইস, প্রিন্টার, স্মার্ট ফোন, এম পি থ্রী প্লেয়ার, ভিডিও গেম কনসোল এবং ব্যক্তিগত কম্পিউটারে ব্যবহার করা যায়।
  • www.wi-fi.org
  • ২০০৯ সালের এপ্রিলে,ইন্টেল, মাইক্রোসফট, এইচপি,ডেল সহ ১৪ টি প্রযুক্তি ভিত্তিক প্রতিষ্ঠান এই কৃতিস্বত্ব ব্যবহার করার জন্য সি এস আই আর ও কে ২৫০ মিলিয়ন ইউ এস ডলার প্রদান করতে সম্মত হয়।
  • ভিক হেয়েস প্রাথমিক ৮০২.১১বি এবং ৮০২.১১এ আদর্শ নকশাকারীদের মধ্যে একজন, তিনি ওয়াই ফাই এর জনক নামে পরিচিত এবং তিনি ১০ বসর আই ই ই ই ৮০২.১১ এর প্রধান ছিলেন।
  • ইউ এস ফেডারেল কমিউনিকেশন কমিশন কর্তৃক রেডিও বর্ণালির কিছু ব্যান্ড উন্মুক্ত করার মাধ্যমে ওয়াই ফাই প্রযুক্তির যাত্রা শুরু হয় ১৯৮৫ সালে। ১৯৯১ সালে এন সি আর কর্পোরেশন/এ টি এন্ড টি নিউওয়েজিন, নরওয়েতে ওয়াই ফাই/৮০২.১১ এর পূর্ব লক্ষণ আবিষ্কার করে।
  • ১৯৯২ সালে কমনওয়েলথ সায়েন্টিফিক এন্ড ইন্ডাস্ট্রিয়াল রিসার্চ অরগানাইজেশন (সি এস আই আর ও) তারহীন তথ্য স্থানান্তরের জন্য কৃতিত্ব লাভ করে অস্ট্রেলিয়াতে। ১৯৯৬ সালে একই বিষয়ে ইউ এস এ তারা কৃতিত্ব লাভ করে। ওয়াই ফাই ওই কৃতিত্বর গাণিতিক সূত্রসমূহ ব্যবহার করে। ২০০৯ সালের এপ্রিলে,ইন্টেল, মাইক্রোসফট, এইচপি,ডেল সহ ১৪ টি প্রযুক্তি ভিত্তিক প্রতিষ্ঠান এই কৃতিস্বত্ব ব্যবহার করার জন্য সি এস আই আর ও কে ২৫০ মিলিয়ন ইউ এস ডলার প্রদান করতে সম্মত হয়।
  • A general rule of thumb in home networking says that Wi-Fi routers operating on the traditional 2.4 GHz band reach up to 150 feet (46 m) indoors and 300 feet (92 m) outdoors.
  • প্রতিটি ওয়াইফাই চিপ wifi alliance দ্বারা স্বীকৃত।সুবিধা
    • লোকাল এরিয়া নেটওয়ার্ক স্থাপনের চেয়ে সহজ এবং কম ব্যয়বহুল- যা ওয়্যারলেস লোকাল এরিয়া নেটওয়ার্ক সংস্থাপন করে। WLAN।
    • ওয়াইফাই চিপসেটের দাম এখন হাতের নাগালেই। খুব কম মূল্যেই এর রাউটার, মডেম এবং এডাপ্টার পাওয়া যায়। একটি ওয়াইফাই ডঙ্গেল এডাপ্টরের দাম 700 টাকার কাছাকাছি।
    • ব্লুটুথের চেয়ে বেশি এলাকায় কাজ করতে পারে।
    • 150 Mbps পর্যন্ত ডেটা ট্রান্সমিট করতে পারে।
    • যে কোন ওয়াইফাই যে কোন ডিভাইস বা নেটওয়ার্কে কাজ করে।
    • যেকোন চলমান যানে ওয়াইফাই নেটওয়ার্ক মেশআপের মাধ্যমে এর অভ্যন্তরীণ ডিভাইসগুলোতে ইন্টারনেট চালানো যায়।
    • ওয়াইফাই হটস্পট আজকাল সকল স্মার্ট ফোনেই বেশ জনপ্রিয়।

    অসুবিধা

    • দুরত্বের বৃদ্ধির সাথে ডেটা ট্রান্সফার স্পীড কমার হার সমানুপাতিক।
    • নির্দিস্ট এলাকা ছাড়া অন্য স্থানে কাজ করেনা।
    • সঠিক ভাবে সেটাপ না করলে নেটওয়ার্ক নিরাপত্তা ঝুঁকি রয়েছে।
    • স্মার্টফোনগুলোর তাপমাত্রা বাড়িয়ে দেয়।